জাহানারা বাদ নাকি শাস্তি?

ঢাকা, ০৯ জানুয়ারি – গত ১৮ ডিসেম্বরের ঘটনা। ফেসবুকে জাহানারা আলমের এক পোস্টকে ঘিরে আলোচনা সর্বত্র। তিনি লিখেছেন, ‘যদি পরিস্থিতি এমন আসে যে আমাকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ছাড়তে হবে আমি নির্দ্বিধায় ছেড়ে দেবো। আমার সততা আমাকে এগিয়ে নেবে এবং সৎ ও বিনীয় আমার জীবনের সেরা অধ্যায়। আমি মৃত্যুর আগ পর্যন্ত এই পথে চলবো।’

প্রথমবার বিশ্বকাপে নাম লিখানোর পর দেশে ফিরে কোয়ারেন্টাইন শেষে নারী ক্রিকেটাররা পরিবারের কাছে ছুটে যান। জাহানারাও বাড়িতে ফেরেন। সেখানে তার হঠাৎ এমন পোস্টে হতভম্ব হন অনেকেই। বিশ্বকাপ নিশ্চিতের পর যেখানে আনন্দে থাকার কথা সেখানে তার কন্ঠে বিষাদের সুর? এ নিয়ে কেউই মুখ খুলেননি। তবে গত শুক্রবার অভিজ্ঞ ক্রিকেটারকে ছাড়া মালয়েশিয়ায় অনুষ্ঠেয় আইসিসি কমনওয়েলথ গেমসের জন্য বিসিবি দল ঘোষণা করলে আবার আলোচনায় আসেন তিনি।

তাকে মূল দলে না রেখে রাখা হয় স্ট্যান্ডবাই তালিকায়। তাহলে কি জাহানারা বাদ? জিম্বাবুয়েতে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচের পারফরম্যান্সে তাকে বাদ দেওয়ার চিন্তা আসতো না। এমনকি কোচ মনজুরুল ইসলাম দাবিও তালগোল পাকানো, ‘নতুনদের সুযোগ করে দিতে জাহানারাকে নেওয়া হয়নি।’

জিম্বাবুয়ে সফরে ছয় ম্যাচ খেলে ৯টি উইকেট নিয়েছেন ডানহাতি পেসার। এর মধ্যে দুই ম্যাচে নিয়েছিলেন ৩টি করে উইকেট। অথচ কমনওয়েলথের মতো আসরে তার এই পারফরম্যান্স বিবেচনায় আসেনি। জানা গেছে, বিবেচনায় না আসার পেছনে কারণ শৃঙ্খলা ভঙ্গ। শাস্তি হিসেবেই তাকে নেওয়া হয়নি কমনওয়েলথ গেমসে।

বিসিবির ঘনিষ্ঠ সূত্র নিশ্চিত করেছেন, জিম্বাবুয়েতে কোচ ও সতীর্থ কয়েকজন ক্রিকেটারের সঙ্গে বাজে আচরণ করেছেন জাহানারা। কোচ তাকে নিয়ে লিখিত অভিযোগও করেছেন। সেজন্য তাকে শাস্তি পেতে হচ্ছে। তবে বিসিবি আরও বড় শাস্তি দেওয়ার চিন্তা করেছিল। দেশে ফিরে নিজের ভুল স্বীকার করায় জাহানারা অল্পতেই বেঁচে যান।

বিসিবির এক কর্মকর্তা বলেছেন, ‘আমরা জাহানারাকে ডেকেছিলাম। জিম্বাবুয়েতে কি হয়েছিল জানতে চেয়েছি। সে-ও সব বলেছে। আমরা তাকে শুধু সতর্ক করেছি। শাস্তিই দেওয়া হয়েছে তাকে। শুধুমাত্র কমনওয়েলথ গেমসে খেলার সুযোগ পাচ্ছে না।’

এ ব্যাপারে জানতে জাহানারার সঙ্গে দুদিন ধরে যোগাযোগ করা হয়েছিল। কিন্তু মুঠোফোনে এই বিষয়ে কোনো কথা না বলে বিষয়টি এড়িয়ে গেছেন।

আগামী জুলাই-আগস্টে ইংল্যান্ডের বার্মিংহামে হবে কমনওয়েলথ গেমসের ২২তম আসর। তার আগে চলতি মাসে মালয়েশিয়ায় এই গেমসের বাছাইপর্ব অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে বাংলাদেশ খেলবে কেনিয়া, মালয়েশিয়া, স্কটল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে।

সূত্র : রাইজিংবিডি
এন এইচ, ০৯ জানুয়ারি

জাহানারা বাদ নাকি শাস্তি?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: