আমি এখন ‘কালু’ শব্দের মানে জানি: ড্যারেন সামি

ভারতে আইপিএল খেলার সময় তাকে ‘কালু’ বলে ডাকা হতো। তিনি কালু শব্দের মানে শক্তিশালী ঘোড়া (স্ট্যালিয়ন) বলেই জানতেন। কিন্তু সম্প্রতি ‘কালু’ শব্দের আসল অর্থ জানতে পারেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেট তারকা ড্যারেন সামি।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক পোস্টে তিনি ভারতে বর্ণবাদী আচরণের শিকার হয়েছেন বলে জানান।

পোস্টে ড্যারেন সামি বলেন, তিনি এবং শ্রীলংকার থিসারা পেরেরা যখন ভারতে আইপিএলে খেলতেন, তখন তাদেরকে ‘কালু’ বলে ডাকা হতো। এই ‘কালু’ শব্দের মানে তখন তিনি জানতেন না।

সম্প্রতি হাসান মিনহাজের অনুষ্ঠান দেখে তিনি জানতে পেরেছেন এর আসল অর্থ। এখন তিনি এতে সাংঘাতিক ক্ষুব্ধ।

যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশের হাতে জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর প্রতিবাদে যে বিক্ষোভ শুরু হয়েছে, তাতে জোরালো সমর্থন জানিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই ক্রিকেটার।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) প্রতি তিনি বর্ণবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সাহায্য করার আহ্বান জানিয়েছেন।

টুইটারে তিনি লিখেন, ‍‘আইসিসি এবং অন্যান্য ক্রিকেট বোর্ড, তোমরা কি দেখতে পাচ্ছো না আমার মতো মানুষদের সঙ্গে কী হচ্ছে? আমাদের মতো মানুষদের বিরুদ্ধে যে সামাজিক অবিচার চলছে সেটা নিয়ে কী তোমরা মুখ খুলবে না? এটা শুধু আমেরিকার ব্যাপার নয়। এটা প্রতিদিন ঘটছে। এটা ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার (কালোদের জীবনের মূল্য)।’

ড্যারেন সামির বর্ণবাদের এই অভিযোগের ব্যাপারে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বা আইসিসি এখনো কোন মন্তব্য করেনি।

এদিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের আরেক ক্রিকেটার ক্রিস গেইলও বর্ণবাদের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ করেন।

তিনি বলেছেন, বর্ণবাদ কেবল ফুটবলে সীমাবদ্ধ নয়, ক্রিকেটেও বর্ণবাদ রয়েছে। খবর: বিবিসি

ইত্তেফাক/জেডএইচ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: