আইপিএলে স্যামি-পেরেরাকে কালু নামে ডাকা হতো

যুক্তরাষ্ট্রে কৃষ্ণাঙ্গ হত্যায় উত্তাল বিশ্বের কয়েকটি দেশ। এই হত্যার প্রতিবাদ জানিয়েছে বিশ্বের ক্রীড়াবিদরাও। ধীরে ধীরে আরো সোচ্চার হচ্ছে বর্ণবাদের বিরুদ্ধে গোটা দুনিয়া। একের পর এক উঠে আসছে বর্ণবাদের শিকার হওয়াদের সেসব ঘটনা। ক্যারিবীয় সাবেক অধিনায়ক ড্যারেন স্যামিও আইপিএলে বর্ণবাদের শিকার হয়েছেন। আইপিএলে তাকে নাকি কালু নামে ডাকা হতো।

যুক্তরাষ্ট্রে জর্জ ফ্লয়েডকে হত্যার পর থেকে ক্রীড়াঙ্গনেও পড়েছে এর ছায়া। সপ্তাখানিক আগেই ক্যারিবীয়ান তারকা ক্রিস গেইল এবং ড্যারেন স্যামি জানিয়েছিলেন, ক্রিকেটও বর্ণবাদ মুক্ত নয়। গত পরশু আইসিসিও তাদের পেইজ থেকে করেছে বর্ণবাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ।

একটা সময় ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের হয়ে খেলেছেন ড্যারেন সামি। সেখানেই নাকি তাকে ডাকা হতো ’কালু’ বলে। শুধু স্যামি নন, থিসারা পেরেরাও ছিলেন এমন বর্ণবাদের শিকার।

এতদিন স্যামি জানতেন না ‘কালু’ শব্দের অর্থ কি। এখন জানতে পেরে ব্যাপারটা খুবই পোড়াচ্ছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপজয়ী এই অধিনায়ককে। ইন্সটাগ্রামে তাই স্যামি করেছেন তার সঙ্গে ঘটে যাওয়া এমন ঘটনার প্রতিবাদ।

‘ওহ! তাহলে যখন আইপিএলে সানরাইজার্সে থিসারা ও আমাকে (স্যামি) যে ‘কালু’ নামে ডাকা হতো তার অর্থ এই? আমি ভাবতাম এর মানে শক্তিশালী ঘোড়া। আমি যখনই জেনেছি যে এর মানে অন্য কিছু তখন ভীষণ রাগ হয়েছে।’

ক্যারিবিয়ানদের উপর বর্ণবাদের অভিযোগ অনেক পুরনো। তাদের ভাষ্যমতে, বড় দলগুলো তাদের গায়ের রঙ্গের কারণেই অনেক সময় তাদের খাটো চোখে দেখে।

ইত্তেফাক/এসআই

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: