ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাহী হচ্ছেন সাবেক ইংল্যান্ড অধিনায়ক!

মরণব্যাধি করোনা ভাইরাসের কারণে অনেক কিছুতেই এসেছে বড় ধরনের পরিবর্তন। তবে সবাইকে অবাক করে দেয়ার মতো ঘটনাটি ছিলো ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ায়। বৈশ্বিক মহামারি করোনার কারণে আর্থিক ক্ষতি পুষাতে নাকি ব্যাটিং কোচসহ ৪০ জন স্টাফকে ছাঁটাই করা হয়েছে বোর্ড থেকে। সেই সঙ্গে আর্থিক অবস্থা সামলাতে না পেরে পদত্যাগ করেছেন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) কেভিন রবার্টস।

এই পদে অন্তর্বর্তীকালীন দায়িত্ব পেয়েছেন নিক হোকলে। যিনি আসন্ন আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজক কমিটির প্রধান হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছিলেন। তবে এই দায়িত্বের জন্য খোঁজা হচ্ছে স্থায়ী একজনকে। তবে সবাইকে অবাক করে দিয়ে এই পদে আসতে পারে ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক অ্যান্ড্রু স্ট্রস।

দ্য অস্ট্রেলিয়ান্সের প্রতিবেদন অনুযায়ী ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার এক দায়িত্বশীল কর্তা স্ট্রসকে এই পদে আবেদন করতে বলেছেন। যদিও সিএ আনুষ্ঠানিকভাবে এই ব্যাপারে এখনও কোনো বক্তব্য দেয়নি।

ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) ক্রিকেট পরিচালকের দায়িত্ব পালন করেছেন স্ট্রস। ২০১৫ সালে তিনি দায়িত্ব নেয়ার পরই বড় পরিবর্তন আসে ইংলিশদের ক্রিকেটে। যদিও ২০১৮ সালে স্ত্রীর অসুস্থতার কারণে ইসিবির ক্রিকেট পরিচালকের দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়াতে হয় তাঁকে।

ইংল্যান্ডের হয়ে ১০০ টেস্ট খেলা স্ট্রস ৭ হাজার ৩৭ রান করেছেন। আর ১২৭ ওয়ানডেতে তাঁর নামের পাশে আছে ৪ হাজার ২০৫ রান। ইংল্যান্ডে ক্যারিয়ার শুরুর আগে ১৯৯৮-৯৯ মৌসুমে সিডনি ইউনিভার্সিটির হয়ে খেলেছিলেন তিনি।

ইত্তেফাক/এসআই

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: