সীমিত ওভারই মুস্তাফিজের পছন্দ

আবির্ভাবেই বিশ্বকে চমকে দিয়েছিলেন তিনি। বলা হচ্ছিল, তিনি বাংলাদেশের পেস বোলিংয়ের ভবিষ্যত্। কিন্তু গত প্রায় দেড় বছর টেস্ট দলে জায়গা নেই তার। বাদ পড়েছেন টেস্ট চুক্তি থেকেও। মুস্তাফিজুর রহমান নিজে বলছেন, টেস্ট তিনি খেলতে চান। তবে নিজের পছন্দের কথা বলতে গিয়ে বলেছেন, তিনি সীমিত ওভারের ক্রিকেটটাই পছন্দ করেন।

ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডেতে পরপর দুই ম্যাচে পাঁচ বা ততোধিক উইকেট নিয়ে যাত্রা শুরু করেছিলেন মুস্তাফিজ। এরপর কাটার, স্লোয়ার, ইয়র্কার দিয়ে দ্রুতই দেশের সেরা ফাস্ট বোলারে পরিণত হয়েছিলেন। কিন্তু কয়েকটা ইনজুরি আর ভিন্ন কন্ডিশনে একটু অকার্যকর হওয়ায় আস্তে আস্তে তাকে নিয়ে সন্দেহ তৈরি হয়। এরপর টেস্টে নিজের কার্যকারিতা প্রমাণ করতে একেবারেই ব্যর্থ হন। ফলে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে গত বছর মার্চের পর আর টেস্ট খেলা হয়নি।

টেস্ট খেলা সম্পর্কে বলতে গিয়ে মুস্তাফিজ বলেছেন, তিনি সব ফরম্যাটেই খেলতে চান, ‘আমি সব ফরম্যাটেই খেলতে চাই। যদিও জানি না যে, সেটা কীভাবে হবে। আপনার একই সঙ্গে আমার শরীরের সহ্যক্ষমতাটাও বিচার করতে হবে। কখনো কখনো এমন হয় যে, লম্বা একটা সফর করতে হয়। সেখানে সব ফরম্যাটের খেলা থাকে। তখন ছোটো ইনজুরি বিবেচনায় নিয়ে আমাকে বিশ্রাম দেয় টিম ম্যানেজমেন্ট। সেটা হয়তো সবাই জানতেও পারে না।’

তবে মুস্তাফিজ পরিষ্কার দাবি করেছেন যে, তিনি টেস্ট খেলতে চান না, এমন কোনো ব্যাপার নেই। তিনি সব ফরম্যাটই খেলতে চান, ‘কিন্তু এটা সত্যি না যে, আমি টেস্ট খেলতে চাই না। আমি বিশ্বাস করি, শুধু ওয়ানডে বা টি-টোয়েন্টি খেলে কেউ গ্রেট খেলোয়াড় হতে পারে না। তাকে সব ফরম্যাটে আগে ভালো হতে হয়।’

এসব বলতে গিয়ে মুস্তাফিজ অবশ্য নিজের পছন্দটা লুকাননি। তিনি বলেছেন, এটা সত্যি যে, তিনি তিন ফরম্যাটের মধ্যে ছোটো দুটিকেই বেশি পছন্দ করেন। তিনি বলছিলেন, ‘ওয়ানডে বা টি-টোয়েন্টি খেলতে আমার বেশি ভালো লাগে। অবশ্য এর মানে এই না যে, আমি টেস্ট খেলতে চাই না।’

টেস্টটা কেন বোলারদের জন্য দারুণ একটা ফরম্যাট, সেটাও বোঝেন মুস্তাফিজ। নিজেই ব্যাখ্যা করে বলছিলেন, ‘টেস্টে সব সময় বোলারদের আরো ভালো করার সুযোগ থাকে। একটা স্পেল যদি খারাপও যায়, আপনি পরে আবার ভালো বল করার সুযোগ পাচ্ছেন। একটা স্পেল খারাপ বল করলে পরের স্পেলে ভালো করতে পারেন। ধরুন, এক স্পেলে আমি ৫ ওভারে ৫০ রান দিয়ে ফেললাম। পরের স্পেলে এসে ৫ রান দিয়ে ৫ ওভারে ৩ উইকেট নিতে পারি।’

আরও পড়ুন: করোনার প্রাদুর্ভাব শুরুর পর ট্রাম্পের প্রথম সভা, বিপুল সমাগম

আবার অন্য দিকে ওয়ানডে বা টি-টোয়েন্টিতে এই ফিরে আসার সুযোগটা নেই। মুস্তাফিজ বলেছেন, ‘কিন্তু সাদা বলে আপনি এই সুযোগটা পাবেন না। ওয়ানডেতে আপনি নয়টা ওভার ভালো করলেন, কিন্তু একটা ওভার খারাপ বল করলেই দলের খারাপ হয়ে যেতে পারে।’

ইত্তেফাক/আরআই

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: