অপেক্ষার প্রহর বাড়ছেই

বৈশ্বিক মহামারি করোনার কারণে দীর্ঘদিন ধরেই বন্ধ রয়েছে সব ধরণের ক্রিকেট। করোনার ভয়াল থাবা শেষ না হলেও ওয়েস্ট ইন্ডিজকে নিয়ে সিরিজ আয়োজন করেছে ইসিবি। বুধবার প্রথম টেস্টে মোকাবেলা করার কথা থাকলেও অপেক্ষার প্রহর যেন শেষই হচ্ছে না। বুধবার সাউদাম্পটনের এই ম্যাচ দিয়েই করোনাভাইরাস বিরতির পর ফিরছে ক্রিকেট। কিন্তু বৃষ্টি ফেরার অপেক্ষা বাড়ছে। ব্রিটিশ সময় সকাল থেকে বৃষ্টি হচ্ছে সাউদাম্পটনে, তাই এখনও টস করা সম্ভব হয়নি। তবে আবহাওয়ার উন্নতি হওয়ায় মাঠকর্মীরা মাঠ খেলার উপযোগী করার কাজ করছেন।

বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৩টায় হওয়ার কথা ছিল টস, আর খেলা শুরু বিকেল ৪টায়। কিন্তু এখনও টসই করা সম্ভব হয়নি। করোনাভাইরাসের পর প্রথম আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরতেও তাই দেরি হচ্ছে। ইতিমধ্যে দুই দফা মাঠ পরিদর্শন করেছেন ম্যাচ অফিসিয়ালরা। বাংলাদেশ সময় বিকেল ৫টায় দিকে ম্যাচ অফিসিয়ালরা দুই অধিনায়ক বেন স্টোকস ও জেসন হোল্ডারের সঙ্গে লম্বা সময় আলোচনা করেছেন।

বিবিসি জানিয়েছে, এই আলোচনায় লাঞ্চের সময় এগিয়ে নিয়ে স্থানীয় সময় ১২-৩০ মিনিট করা হয়েছে। দুপুর ১-১০ মিনিটে আবার মাঠ পরিদর্শনে যাবেন ম্যাচ অফিসিয়ালরা।

এদিকে ক্রিকইনফো খুশির খবরই দিয়েছে। ক্রিকেটবিষয়ক ওয়েবসাইটটির লাইভ ধারাভাষ্যে বলা হয়েছে, সাউদাম্পটনের প্রথম দিনে অন্তত ৫০ ওভার পাওয়া যাবে। লাঞ্চ থেকে ঘুরে এসে মাঠ দেখে টসের সময় নির্ধারণ করবেন আম্পায়াররা।

ক্রিকেট ইতিহাসে ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজের লড়াইয়ে এমনিতেই অন্যরকম উত্তাপ আছে, এর ওপর আবার করোনার পর তাদেরকেই দিয়ে শুরু হচ্ছে আন্তর্জাতিক ম্যাচ- দুয়ে মিলে তিন ম্যাচের সিরিজটি ক্রিকেটপ্রেমীদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে। তারা প্রতীক্ষায় আছে সাউদাম্পটন টেস্টের। তবে সেখানে টেস্টের চিরচেনা রূপ থাকছে না। কোভিড-১৯ ক্রিকেটের অনেক কিছুই পাল্টে দিয়েছে। নতুন রূপে হাজির হওয়া ২২ গজের লড়াই দেখার আগ্রহটা সে কারণেও আরও বেশি।

ইত্তেফাক/এসআই

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: