হঠাৎ কেন বিসিসিআইয়ে পদত্যাগের হিড়িক?

ভারতের ক্রিকেট বোর্ডের সময়টা খুবই খারাপ যাচ্ছে। সৌরভ গাঙ্গুলি দায়িত্ব নেয়ার পর থেকেই অনেকটাই অন্তর্কোন্দলে পুড়ছে বিসিসিআই। কয়েকদিন আগে বিসিসিআই-এর সিইও পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন রাহুল জোহরি।

রাহুল জোহরির বিরুদ্ধে মিটু অভিযোগ করেছিলেন এক মহিলা। তিনি জানিয়েছিলেন, রাহুল জোহরি তাঁকে বাড়িতে ডেকে অশালীন আচরণ করেছিলেন। রাহুল জোহরি সেই থেকেই চাপে ছিলেন। অবশেষে ইস্তফা দিতে হয়েছিল তাঁকে। এবার বোর্ডের জেনারেল ম্যানেজার পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন প্রাক্তন ক্রিকেটার সাবা করিম। ২০১৭-র ডিসেম্বর মাস থেকে তিনি এই পদের দায়িত্ব সামলাচ্ছিলেন। বোর্ডের তরফে অবশ্য এখনও এই নিয়ে কোনও বিবৃতি দেওয়া হয়নি।

বিসিসিআই দিন কয়েক আগে সিইও রাহুল জোহরির পদত্যাগ পত্র গ্রহণ করেছে। গত বছর ২৭ ডিসেম্বর পদত্যাগ জমা দিয়েছিলেন রাহুল জোহরি। সেই সময় তাঁর ইস্তফা গ্রহণ করেনি বোর্ড। তবে এতদিন পর হঠাৎ করে কেন ইস্তফা গ্রহণ করা হল সেটাও জানা যায়নি। ২০১৬ থেকে বোর্ডের সিইও পদের দায়িত্ব পালন করছিলেন জোহরি। ২০২১ পর্যন্ত তাঁর দায়িত্বে থাকার কথা ছিল। কিন্তু বিসিসিআই সভাপতির পদে সৌরভ গাঙ্গুলি দায়িত্ব নেওয়ার পরই জোহরি পদত্যাগ করে দেন।

রাহুল জোহরির ইস্তফা গ্রহণ হওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যেই পদত্যাগ করলেন সাবা করিম। ২০১৭ সাল থেকে তাঁরা একসঙ্গে বোর্ডে নিজেদের দায়িত্ব সামলাচ্ছিলেন। ৫২ বছর বয়সী সাবা করিম এর আগে নির্বাচক ছিলেন। দেশের জার্সিতে তিনি একটি টেস্ট ও ৩৪টি ওয়ানডে খেলেছেন। ১২০টি প্রথম শ্রেণীর ম্যাচ খেলেছেন সাবা। ২২টি সেঞ্চুরি ও ৩৩টি হাফ সেঞ্চুরি মাধ্যমে ৭৩১০ রান করেছেন তিনি।

ইত্তেফাক/এসআই

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: