টেস্টের চূড়ায় অলরাউন্ডার স্টোকস

দেড় বছর পর শীর্ষস্থান থেকে সরতে বাধ্য হলেন জেসন হোল্ডার। ক্যারিবিয়ান অধিনায়ককে টপকে টেস্টের সেরা অলরাউন্ডার এখন বেন স্টোকস।

২০০৬ সালের মে মাসে অ্যান্ড্রু ফ্লিনটফ শীর্ষে ওঠার পর এই প্রথম টেস্টে এক নম্বর অলরাউন্ডার হলেন কোনো ইংলিশ ক্রিকেটার। অলরাউন্ডার র্যাংকিংয়ের মতো বোলিংয়েও অবনমন হয়েছে হোল্ডারের। দুই থেকে নেমে গেছেন তিনি তিনে।

গেল সোমবার ম্যানচেস্টারে শেষ হওয়া দ্বিতীয় টেস্টে ১৭৬ ও অপরাজিত ৭৮ রানের ইনিংস খেলেছেন স্টোকস, উইকেট নিয়েছেন দুই ইনিংসে তিনটি। জিতেছেন ম্যাচ সেরার পুরস্কার। এই পারফরম্যান্সে এক টেস্টেই পেয়েছেন ৬৬ রেটিং পয়েন্ট। এই টেস্ট শুরুর আগে হোল্ডারের চেয়ে তিনি পিছিয়ে ছিলেন ৫৪ রেটিং পয়েন্টে। এখন এগিয়ে গেছেন ৩৮ পয়েন্টে।

স্টোকসের রেটিং পয়েন্ট এখন ৪৯৭। ২০০৮ সালের এপ্রিলে জ্যাক ক্যালিস ৫১৭ রেটিং পয়েন্ট পাওয়ার পর স্টোকসের রেটিং পয়েন্টই এখনো পর্যন্ত অলরাউন্ডারদের সেরা। দীর্ঘদিন শীর্ষে থাকা সাকিব আল হাসানের সেরা রেটিং পয়েন্ট ২০১৭ সালের আগস্টে পাওয়া ৪৮৯। ওল্ড ট্র্যাফোর্ড টেস্টে ব্যাটে-বলে ভালো করতে না পারায় হোল্ডার হারিয়েছেন ২৬ রেটিং পয়েন্ট। ৪৫৯ পয়েন্ট নিয়ে এখন তিনি দুইয়ে। ৩৯৭ পয়েন্ট নিয়ে তিনে রবীন্দ্র জাদেজা।

ব্যাটসম্যানদের র্যা?ঙ্কিংয়ে স্টোকস এগিয়েছেন ৬ ধাপ। অস্ট্রেলিয়ার মার্নাস লাবুশেনের সঙ্গে এখন তিনি যৌথভাবে তিনে। র্যাঙ্কিংয়ে অবস্থানের মতো ৮২৭ রেটিং পয়েন্টও ব্যাটিংয়ে স্টোকসের ক্যারিয়ার সেরা। শীর্ষ দুইয়ে আগের মতোই আছেন স্টিভ স্মিথ ও বিরাট কোহলি। প্রথম টেস্টে বাইরে থাকার পর দ্বিতীয় টেস্টে ফিরে দুই ইনিংসে ৬ উইকেট নিয়ে স্টুয়ার্ট ব্রড ফিরেছেন বোলারদের র্যাঙ্কিংয়ের সেরা দশে। চার ধাপ এগিয়ে র্যাঙ্কিংয়ে ইংল্যান্ডের সেরা বোলার এখন এই পেসার।

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: